বাবুনগরী আউট, শেখ আহমদ ইন

দেশের সবচেয়ে বড় কওমি মাদ্রাসা দারুল উলুম মঈনুল ইসলাম হাটহাজারীর সহকারী পরিচালক (মুঈনে মুহতামিম) পদ থেকে মাওলানা জুনায়েদ বাবুনগরীকে সরিয়ে দিয়ে তার স্থলে মাদ্রাসার সিনিয়র মুহাদ্দিস মাওলানা শেখ আহমদকে নিযুক্ত করা হয়েছে।
২০১৭ সাল থেকে বাবুনগরী এই দায়িত্ব পালন করছিলেন। নতুন এই সিদ্ধান্তের মধ্য দিয়ে আল্লামা শাহ আহমদ শফীর পরে মাদ্রাসাটির মহাপরিচালক হওয়ার দৌড়ে অনেকটা এগিয়ে গেলেন শেখ আহমদ।
বুধবার হাটহাজারী মাদ্রাসার মজলিসে শূরার বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত হয়। বৈঠকে মাদ্রাসার মহাপরিচালক পদে ৩৫ বছর ধরে দায়িত্ব পালন করে আসা আল্লামা শাহ আহমদ শফী আজীবন বহাল থাকবেন বলে সিদ্ধান্ত নেন শূরা সদস্যরা।
হাটহাজারী মাদ্রাসার পরবর্তী নেতৃত্ব নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরেই উত্তেজনা চলছিল। আলোচিত সংগঠন হেফাজতে ইসলামের মহাসচিব জুনায়েদ বাবুনগরীকে তার পদ থেকে সরিয়ে দেয়া হতে পারে বলে আশঙ্কা করছিলেন তার অনুসারীরা। তাদের অভিযোগ, সরকারবিরোধী অবস্থানের কারণেই মূলত বাবুনগরীকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে। এর জন্য তারা শাহ আহমদ শফীর ছেলে আনাস মাদানীকে দায়ী করেন।
শূরা বৈঠককে কেন্দ্র করে অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটতে পারে এমন আশঙ্কায় হাটহাজারী মাদ্রাসায় গতকাল থেকেই আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের তৎপরতা চোখে পড়ে।
শূরার বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন- ফরিদাবাদ মাদ্রাসার পরিচালক ও হাইয়াতুল উলইয়ার কো-চেয়ারম্যান মাওলানা আবদুল কুদ্দুস, ফরিদাবাদ মাদ্রাসার নায়েবে মুহতামিম ও বেফাকের যুগ্ম-মহাসচিব মুফতি নুরুল আমিন, খিলগাঁও মাখজানুল উলুম মাদ্রাসার পরিচালক মাওলানা নুরুল ইসলাম জিহাদী, মেখল মাদ্রাসার পরিচালক মাওলানা নোমান ফয়জী, নানুপুর মাদ্রাসার পরিচালক মাওলানা সালাহউদ্দিন নানুপুরী, হাটহাজারী ফতেহপুর মাদ্রাসার পরিচালক মাওলানা মাহমুদুল হাসান ফতেহপুরী, মাওলানা ওমর ফারুক বাথুয়া, মাওলানা আবুল কাশেম ফেনী ও হাটহাজারী মাদ্রাসার শিক্ষা পরিচালক মাওলানা নুর আহমদ।

SHARE THIS

0 Comments: