কানাইঘাটে মাওলানা ওয়ালিউল্লাহর দাফন সম্পন্ন

কানাইঘাট প্রতিনিধি :: কানাইঘাট মনসুরিয়া কামিল মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা আল্লামা আব্দুর রব ক্বাসেমীর পুত্র মাদ্রাসার অফিস সহকারী পৌরসভার নয়াতালুক মহেষপুর গ্রামের বাসিন্দা হাফিজ মাওলানা ওয়ালিউল্লাহ হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ইন্তেকাল হয়েছে।
বুধবার রাতে বুকে ব্যথাজনিত কারনে মাওলানা ওয়ালিউল্লাহ গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে তাকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর সেখানে তিনি মারা যান। ইন্নালিল্লাহি…. রাজিউন।
মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৫১ বছর। তিনি স্ত্রী, ৫ মেয়ে ১ ছেলে সহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। বৃহস্পতিবার বাদ আছর মনসুরিয়া কামিল মাদ্রাসা মাঠে মাওলানা ওয়ালিউল্লাহর জানাজার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়।
এতে হাজারো মানুষ শরীক হন। জানাজায় নামাজ পড়ান সাবেক সাংসদ সদস্য অধ্যক্ষ মাওলানা ফরিদ উদ্দিন চৌধুরী। পরে তার লাশ ধর্মপুর (পিল্লাকান্দি) কবরস্থানে দাফন করা হয়। পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে মাওলানা ওয়ালিউল্লাহ একজন মেধাবী শিক্ষার্থী ছিলেন। হিফজ সম্পন্ন করে তিনি মাদ্রাসা লাইনে ফাযিল ডিগ্রি অর্জন করেন এবং সিলেট এমসি কলেজ থেকে বিএ পাস করেন। দীর্ঘদিন ধরে তিনি মনসুরিয়া কামিল মাদ্রাসার অফিস সহকারীর দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন। তার বাবা আল্লামা আব্দুর রব ক্বাসেমী পিল্লাকান্দি অত্র মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা প্রিন্সিপাল ছিলেন।
তার মৃত্যুতে শোকাহত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা এবং মরহুমের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে শোক প্রকাশ করেছেন মাদ্রাসা গর্ভনিং বর্ডির সভাপতি বিশিষ্ট আইনজীবি এডঃ ইলিয়াছ, মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা আতাউর রহমান সহ বিভিন্ন মহল। একই সময়ে মাদ্রাসা মাঠে ধর্মপুর গ্রাম নিবাসী আব্দুল হাফিজের জানাজার নামাজও অনুষ্ঠিত হয়।

SHARE THIS

0 Comments: